প্রতিদিন ঘুম থেকে উঠে এইভাবে প্রণাম করুন এই দেবতাকে, থাকবেনা কোন অর্থ সমস্যা, কোন রোগ…

0
645

মর্নিংওয়াক করতে করতে গঙ্গার তীরে গেলে দেখতে পাবেন অনেকেই স্নান করার আগে এক বুক জলে নেমে সূর্যদেবকে জল নিবেদন করছেন। সেই সঙ্গে প্রণাম জানাচ্ছেন অগ্নি পিণ্ড সম এই নক্ষত্রটিকে। কিন্তু কেন ? সূর্য প্রণাম করলে কি কি উপকার পাওয়া যায় ?

শাস্ত্র মতে সূর্য হল সর্বশক্তির উৎস, তাই সর্বশক্তিমানকে জলদান করলে নেগেটিভ এনার্জি দূর হতে শুরু করে। ফলে কোন ধরনের ক্ষতি হবার আসঙ্খা যেমন কমে যায়, তেমনি কর্মক্ষেত্রে চূড়ান্ত সফলতার স্বাদ পেতে সময় লাগে না। শুধু তাই নয়, মেলে আরও অনেক উপকার।

তাই জীবনে সুখ শান্তি ও সাফল্য পেতে সকালে ঘুম থেকে উঠে কি করা উচিৎ সে সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে প্রতিবেদনটি মনোযোগ সহকারে পড়ুন।

১. চলার পথে বাঁধা দূর 

জীবনে যদি সুখ শান্তি ও সাফল্য পেতে চান তাহলে প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে প্রথমেই পূর্বদিকে গিয়ে সূর্যদেবকে প্রণাম করুন। শাস্ত্রমতে সূর্য হল ‘Soul Of The Universe’, অর্থাৎ প্রানের উৎস। তাইতো সকালবেলা সূর্যদেবকে প্রণাম করলে জীবনে চলার পথে আসা যেকোন বাঁধা সরে যায়।

ফলে কোন ধরনের ক্ষতি হবার আসঙ্খা একেবারেই কমে যায়। সেই সঙ্গে পরিবারের ভিতরে সুখ শান্তি বজায় থাকে। তাই সারা জীবনটা যদি আনুন্দে কাটাতে চান তাহলে প্রতিদিন সকালে উঠে সূর্যকে জলদান করতে ভুলবেন না। দেখবেন উপকার পাবেন হাতেনাতে।

২. শরীর, মন ও আত্মাকে চাঙ্গা রাখতে

এমনটা বিশ্বাস করা হয় যে নিয়মিত সূর্যকে জলদান করলে মনের ভিতর বাসা বেঁধে থাকা খারাপ চিন্তা দুরে পালায়। সেই সঙ্গে দেহের ভিতরে ভিতামিন-ডি এর মাত্রা বাড়তে থাকে। ফলে নানাবিধ রোগ থেকে মুক্তি পাওয়া যায়। এক কথায় শরীর, মন ও আত্মাকে যদি চাঙ্গা রাখতে চান তাহলে প্রতিদিন সূর্যকে প্রণাম করতে ভুলবেন না।

৩. চূড়ান্ত সফলতার স্বাদ

হিন্দু ধর্মের ওপর লেখা একাধিক বইয়ে এমনটা দাবি করা হয়েছে যে সূর্যমন্ত্র পাঠ করার মধ্য দিয়ে প্রতিদিন সকালে যদি সূর্যদেবতার আরাধনা করা যায় তাহলে মনের মতন চাকরি পাওয়ার সম্ভবনা যেমন বেড়ে যায় তেমনি কর্মক্ষেত্রে চূড়ান্ত সফলতার স্বাদও পাওয়া যায়। তাই প্রতিদিন সকালে ঘুম থেকে উঠে ‘ওঁ সূর্যায় নমঃ‘ মন্ত্রটি পাঠ করুন।

৪. আত্মবিশ্বাস বৃদ্ধি

শাস্ত্রমতে সূর্যদেবকে নিয়মিত অর্ঘ প্রদান করলে মনের ভিতর লুকিয়ে থাকা ভয় দুরে পালায়। সেই সঙ্গে আত্মবিশ্বাস এতটা বেড়ে যায় যে যেকোন ধরনের বাঁধা পের হতে সময় লাগে না। শুধু তাই নয়, ইগো রাগ এবং লোভের মতন খারাপ দোষের প্রভাবও কাটতে শুরু করে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here